Ads Top

মাথা ঘুরিয়ে দেয়ার মতো ৫টি নতুন গ্যাজেট


হাত ঘুরিয়ে ব্যাটারি চার্জ করার গ্যাজেট হ্যান্ড এনার্জি কিংবা টাচ করা ছাড়াই শুধুমাত্র হাতের নির্দেশে কম্পিউটার বা ড্রোন চালানোর আর্মব্যান্ড মায়ো, বাজারে আসা চোখ ধাঁধানো ৫টি প্রযুক্তি পণ্য নিয়ে থাকছে এই প্রতিবেদন।

মাথা ঘুরিয়ে দেয়ার মতো ৫টি নতুন গ্যাজেট !!



হ্যান্ড এনার্জি
স্মার্টফোন বা ট্যাবলেট চার্জ শেষ হয়ে গেলেই মুশকিল। এক মুহুর্তেই পুরো বিশ্ব থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যেতে হয় তখন। আবার এমনও হয় যখন আপনার গেজেটটিকে চার্জ দেয়ারও সুযোগ থাকে না। অনেকেই সমাধান খুজছেন পাওয়ার ব্যাংক বা সোলার চার্জার কেনার মাধ্যমে। কিন্তু যদি এমন হয় আপনার গেজেটটি চার্জ করতে একদমই নির্ভর করতে হবে না বিদ্যুত বা সৌরশক্তির ওপর, শুধুমাত্র আপনার হাতের ঘূর্ণিতেই চার্জ হয়ে যাবে সব। তবে, আপনার জন্য বি এনার্জির তৈরি মিনি জেনারেটর হ্যান্ড এনার্জি ছাড়া এখন পর্যন্ত কোনো বিকল্প নেই। শুধুমাত্র হাত ঘুরিয়েই চালানো যাবে এই মিনি জেনারেটর এবং উতপাতিদ বিদ্যুত বিল্টইন ব্যাটারিতে স্টোর করা যাবে বা স্মার্টফোন, ট্যাবলেট, ইবুক, অ্যাকশন ক্যামেরা বা ফ্ল্যাশলাইট চার্জ করতে ব্যবহার করতে পারবেন। হ্যান্ড এনার্জির জন্য রয়েছে অ্যাপ এবং একে গেইম কন্ট্রোলার হিসেবেও ব্যবহার করা যাবে।

স্ক্রাইবিট
ঘরের দেয়ালকে ক্যানভাসে পরিণত করে মুহুর্তেই কোনো ড্রয়িং বা ছবি আকার আশ্চর্য রোবট স্ক্রাইবিট। আর এই রোবটটি ডিজিটাল ড্রয়িংকে নিয়ে গেছে নতুন এক মাত্রায়। মাত্র ৫ মিনিটের মধ্যেই দেয়ালে আকাআকির জন্য তৈরি করা যায় এই রোবটটিকে। প্লাগ ইন করে, স্মার্টফোন থেকে কোনো ড্রয়িং বা ছবি নির্বাচন করে দিলেই কাজ শুরু করে এই আকিয়ে রোবট। কাচ, কাঠ বা সাধারণ দেয়ালের ওপর আকতে পারে এই রোবট। এমনকি, স্ত্রাইবিট দিয়ে দেয়ালে আকা যে কোনো ড্রয়িং মুহুর্তেই মুছে ফেলে বার বার নতুন করে আকারও সুযোগ রয়েছে। স্ক্রাইবিটে ব্যবহার করা যাবে ২৪টি রংএমআইটির প্রফেসর কার্লো রাট্টির উদ্ভাবিত এই রোবটটি আকারেও বেশ ছোটো।

ডুয়ো
এটি নতুন প্রজন্মের ল্যাপটপ এক্সেসরি যা আপনার কাজের সক্ষমতা ৫০ শতাংশ পর্যন্ত বাড়িয়ে দিতে পারে। মাত্র ৬৮০ গ্রাম ওজনের এই পোর্টেবল মনিটর খুব সহজেই লাগিয়ে নেয়া যাবে যে কোনো ল্যাপটপের সাথে আর ইউএসবি ক্যাবল কানেক্ট করলেই এটি কাজ করার জন্য সম্পূর্ণ প্রস্তুত। এটি ২৭০ ডিগ্রি পর্যন্ত ঘোরানো যায় বলে প্রয়োজন মতো যে দিকে খুশি ঘুরিয়ে নেয়া যাবে মনিটরটি। কনফারেন্স বা প্রেসেন্টেশনের কাজে আদর্শ হতে পারে এই পোর্টেবল মনিটর। ১২.৫ ইঞ্চি সাইজের এইচডি মনিটরে থাকা ভিডিও ড্রাইভার ল্যাপটপের ব্যাটারিকেও সুরক্ষা দেবে। ২০১৯ সাল নাগাদ ক্রেতাদের হাতে পৌছাবে এই পোর্টেবল মনিটরটি।

গাইজিয়ার
শুধু পরিবেশবান্ধবই নয়, খুব অল্প খরচে চলবে ছোটো আকারের এই এয়ার কুলারটি। এয়ার কন্ডিশনার চালানো একদিকে যেমন মোটা অংকের বিদ্যুত খরচ হয়, অন্যদিকে তৈরি করতে পারে নানা শারীরীক সমস্যা। আর এসবের হাত থেকে বাচাবে খুব সহজে ব্যবহাযোগ্য এই কুলার গাইজিয়ার। শুধুমাত্র ফ্রিজারে জমানো বরফ ভরে দিতে হবে কাঠ এবং ওপরে ধাতুর আস্তর দিয়ে তৈরি করা এই কুলারের ভেতর। ভেতরে থাকা রিচার্জেবল ব্যাটারির সাহায্যে চলে কুলারের ফ্যান এবং ঠান্ডা বাতাস চতুর্দিকে ছড়িয়ে পড়ে। ১২ বর্গমিটার আয়তনের একটি রুমের তাপমাত্রা ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত নামিয়ে আনতে পারে এটি।

মায়ো আর্মব্যান্ড
নতুন প্রযুক্তির এই গেসচার রিকগনিশন ডিভাইসটি তৈরি করেছে থালমিক ল্যাব। আর বহু ধরনের ওয়ারলেস প্রযুক্তির সাথে ব্যবহার করা যাবে এই ডিভাইসটি। হাতের কনুইয়ের নিচে আর্মব্যান্ডের মতো পড়তে হয় এটি। আর এতে থাকা কয়েক সেট ইলেক্ট্রেমায়োগ্রাফিক সেন্সর হাতের মাসলে ইলেক্ট্রিকাল একটিভিটি ধরতে পারে এবং জাইরোস্কোপ, ম্যাগনেটোমিটার ইত্যাদির সাহয্যে হাতের নাড়াচাড়া অনুযায়ী নির্দেশ দিতে পারে। আর শুধুমাত্র হাত নাড়িয়েই এটি দিয়ে ভিডিও গেইম, কম্পিউটার, স্মার্টফোন, ড্রোন বা টিভি চালানো যাবে।

© 2015-2019 All Rights Reserved. Powered by Blogger.