Ads Top

বিস্ময়কর স্থাপত্যের নিদর্শণ পিসার হেলানো টাওয়ার



পিসার হেলানো টাওয়ারটি যে শুধু এর অস্বাভাবিক নির্মাণশৈলির কারণেই বিখ্যাত তা নয়, আপনাদের মনে আছে কি না, এই পিসা টাওয়ারে দাঁড়িয়েই বিখ্যাত বিজ্ঞানী গ্যালিলিও বস্তুর ভরের তার সেই আলোচিত সূত্রটি প্রমাণ করে দেখিয়েছিলেন


বিস্ময়কর স্থাপত্যের নিদর্শণ পিসার হেলানো টাওয়ার


ইতালির ফ্লোরেন্সে অরনো নদীর তীরে ১১৭৩ সালে নির্মাণ শুরু হয় টাওয়ারটির। ৫৪ মিটার বা ১৭৯ ফুট উঁচু এই টাওয়ারের নির্মাণ কাজ শেষ হয় ১৩১৯ সালে। নির্মাণ শেষ হওয়ার পর দেখা যায় এটি একদিকে হেলে পড়েছে। এরপর থেকেই জল্পনা কল্পনা শুরু হয় যে কোনো দিন পড়ে যেতে পারে শ্বেত পাথরের এই স্থাপনাটি। কিন্তু সবার চোখ ঘোলা করে দিয়ে এখন পর্যন্ত টিকে আছে এই অসাধারণ টাওয়ারটি।

১৯৯০ থেকে ২০০১ পর্যন্ত টাওয়ারটি ৫.৫ ডিগ্রি পর্যন্ত হেলে ছিলো। এখনো প্রতিবছর ১.২৫ সেন্টিমিটার করে হেলে পড়ছে এই টাওয়ারটি। অনেকেই আশংকা করছেন ২০২০-২৫ সালের মধ্যে পুরোপুরি হেলে পড়বে এটি।

কিন্তু কেন হেলে পড়েছিলো এই টাওয়ারটি?

গবেষকদের মতে টাওয়ারটি নির্মাণস্থলের মাত্র ৫০ মিটার নিচেই রয়েছে পানির স্তর। আর অপেক্ষাকৃত নরম মাটির ওপর নির্মাণ করায় ধীরে ধীরে এক দিকে হেলে পড়তে থাকে এই টাওয়ারটি। পিসার টাওয়ার 'রেনেসাঁ বেল টাওয়ার' নামেও পরিচিত। প্রতিবছর এই স্থাপনাটি দেখতে যান হাজার হাজার পর্যটক। এটা পিসার ক্যাথিড্রাল স্কয়ারের তৃতীয় প্রাচীনতম স্থাপনা।

No comments:

© 2015-2019 All Rights Reserved. Powered by Blogger.