Ads Top

বিশ্বের সবচেয়ে উঁচুতে তৈরি ৫টি রেললাইন



আবিষ্কারের পর থেকেই রেলগাড়ি যাতায়াত বা পণ্য পরিবহণের কাজে ব্যাপকভাবে ব্যবহার হয়ে আসছে। এখনো বহু দেশের গণপরিবহণের একটা বড় অংশ দখল করে আছে রেল সার্ভিস। তবে, কিছু কিছু রেললাইন তৈরি হয়েছে এমন সব জায়গায় যেখানে যাওয়ার কথা চিন্তা করতেও ভয় হতে পারে আপনার। বিশ্বের সবচেয়ে উঁচুতে অবস্থিত ৫টি রেললাইন নিয়ে থাকছে এই প্রতিবেদন


বিশ্বের সবচেয়ে উঁচুতে তৈরি ৫টি রেললাইন 


৫. ম্যানিটো এবং পাইকস পিক রেলওয়ে

বিশ্বের ৫ম এবং উত্তর আমেরিকার সবচেয়ে উঁচু রেলওয়ে সার্ভিসের নাম ম্যানিটো এন্ড পাইকস পিক রেলওয়ে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কলোরাডোতে রয়েছে এই রেলওয়ে সার্ভিসটি। ম্যানিটো স্প্রিংস থেকে পাইকস পিকের চূড়া অব্দি পৌছে গেছে ১৪.৩ কিলোমিটার দীর্ঘ রেললাইন। রেললাইনের সর্বোচ্চ উচ্চতা সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১৪ হাজার ১১১ ফুট। ১৮৯১ সালে নির্মাণ করার পর থেকে এখন পর্যন্ত পর্যটকদের জন্য ব্যবহার হয়ে আসছে এই রেললাইনটি। শীতের সময় পাইকস পিকের চূড়া এবং রেললাইন বরফে ঢেকে যাওয়ায় শুধুমাত্র গরমের সময় চলাচল করে এই ট্রেনটি।

৪. তিতিকাকা ট্রেন

বিশ্বের সবচেয়ে উচ্চতম হ্রদ তিতিকাকার দেশ পেরুতে রয়েছে বিশ্বের চতুর্থ উচ্চতম রেললাইন। বেলমন্ড আন্দিয়ান এক্সপ্লোরার নাম হলেও টিটিকাকা ট্রেন নামে বহুল প্রচলিত এই রেলসার্ভিসটিকুসকো থেকে পুনো এবং আরেকুইপা পর্যন্ত চলাচল করে এই সার্ভিসের ট্রেনগুলো। মূলত পর্যটকদের জন্যই তৈরি করা হয়েছে বিলাসবহুল এই ট্রেনটি। রেললাইনটি সবচেয়ে উঁচুতে উঠেছে লা রায়া গিরিপথের কাছে। সমুদ্র সমতল থেকে ১৪ হাজার ১৫০ ফুট উঁচু লা রায়া গিরিপথের কাছে যাত্রাবিরতি করে ট্রেনটি, যেখান থেকে নিচের বিস্ময়কর দৃশ্য দেখতে পারেন দর্শনার্থীরা।

৩. রিওমুলাটোস পটোসি লাইন

বলিভিয়াতে অবস্থিত রিওমুলাটোস পটোসি লাইন বিশ্বের ৩য় উচ্চতম রেললাইন। ৪৪০ কিলোমিটার দীর্ঘ এই রেললাইনটি সবচেয়ে উঁচুতে পৌছেছে কনডর স্টেশনে যেখানে এর উচ্চতা সমৃদ্রপৃষ্ট থেকে ১৫ হাজার ৭০২ ফুট। খনি থেকে রুপা পরিবহণের জন্য এই রেললাইনটি তৈরি হয়েছিলো। কিন্তু পরবর্তীতে যাত্রীবাহী ট্রেনও চলাচল শুরু হয়। অনেক উঁচুতে অবস্থিত হওয়ায় এখানকার বাতাসে অক্সিজেনের পরিমাণ বেশ কম। যে কারণে এই রেললাইনে চলাচলের আগে হার্ট বা শ্বাসকষ্টের রোগীদের নিতে হয় ডাক্তারের পরামর্শ।

২. লিমা হুয়ানকাও রেলরোড

বিশ্বের ২য় উচ্চতম রেললাইনটি রয়েছে পেরুতে। দেশটির রাজধানী লিমা থেকে আন্দিজ পর্বতমালার আরো উচুতে অবস্থিত শহর হুয়ানকাও-এ যাওয়ার পথে এই রেললাইন বিশ্বের ২য় উচ্চতম রেলটানেল গালেরা সুরঙ্গের ভেতর দিয়ে যায়। রেললাইনটি সবচেয়ে উঁচুতে পৌঁছেছে টিকলিও নামক জায়গায় যেখানে এর উচ্চতা ১৫ হাজার ৮৪৩ ফুট। পেরুর আন্দিজ পর্বতের অসাধারণ এবং বিস্ময়কর সৌন্দর্য উপভোগ করতে পারবেন এই রেল থেকে। এই রুটে নিয়মিত যাত্রীবাহী ট্রেন না থাকলেও পর্যটকদের জন্য মাসজুড়ে বেশ কয়েকটি ট্রিপের ব্যবস্থা করেছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। অনেকে উঁচুতে অবস্থিত হওয়ায় যাত্রীদের সুবিধার্থে অক্সিজেনও সরবরাহ করা হয় এই ট্রেনে।

১. জিনিং/গোলমাদ-লাসা

বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে উঁচুতে অবস্থিত রেললাইনটি হচ্ছে কিংঘাই-তিব্বত রেলওয়ে। এটি গোলমাদ-লাসা রেলপথ নামেও পরিচিত। ১১৪২ কিলোমিটার দীর্ঘ এই রেলপথটি চীনের পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ তিব্বতের লাসার সাথে গোলমাদকে যুক্ত করেছে। ট্যাঙ্গুলা গিরিপথের উপর এই রেললাইনটি সর্বোচ্চ উচ্চতায় পৌঁছেছে। এখানে রেলপথটি সমুদ্রসমতল থেকে ১৬ হাজার ৬৪০ ফুট উঁচুতে তৈরি হয়েছে। এখানেই রয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু রেলস্টেশনটি যা ১৬ হাজার ৬২৭ ফুট উঁচুতে তৈরি হয়েছে। এই রেলপথেই রয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু রেলওয়ে টানেলটিও। ফেঙ্গুসান টানেলটি ১৬ হাজার ৯৩ ফুট উঁচুতে তৈরি হয়েছে। গোলমাদ-লাসা রেলরুটে সবমিলিয়ে ৪৫টি স্টেশন রয়েছে।  


No comments:

© 2015-2019 All Rights Reserved. Powered by Blogger.